Hathazari Sangbad
হাটহাজারীবুধবার , ১১ অক্টোবর ২০২৩

পুরোপুরি বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হচ্ছে গাজা, আতঙ্ক-শঙ্কায় লাখ লাখ মানুষ

অনলাইন ডেস্ক:
অক্টোবর ১১, ২০২৩ ৭:৩৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

আর মাত্র কয়েক ঘণ্টার পর পুরোপুরি বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবে ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকা। গাজার বিদ্যুৎ বিভাগের প্রধান জালাল ইসমাইল জানিয়েছেন এ তথ্য।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি মঙ্গলবার (১১ অক্টোবর) এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, এদিন সকালে জানানো হয়েছিল গাজার একমাত্র বিদ্যুৎ কেন্দ্রটি আর মাত্র ১২ ঘণ্টা সচল রাখার জ্বালানি রয়েছে। কিন্তু পরবর্তীতে উপত্যকার বিদ্যুৎ বিভাগের প্রধান জানিয়েছেন, আর ৩ ঘণ্টা পরই বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবেন সেখানকার সাধারণ মানুষ।

গাজায় মাত্র একটি বিদ্যুৎ কেন্দ্র রয়েছে। সেখানকার বাসিন্দাদের চাহিদা মেটানোর জন্য বাকি বিদ্যুৎ আসত ইসরায়েল থেকে। কিন্তু গত রোববার ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ঘোষণা দেয় সেখানে সর্বাত্মক অবরোধ আরোপ করবে এবং পানি, বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খাবারসহ সব প্রয়োজনীয় সরবরাহ বন্ধ করে দেবে। জ্বালানি সরবরাহ বন্ধ থাকায় বাধ্য হয়ে এখন বিদ্যুৎ কেন্দ্রটি বন্ধ করে দিতে হবে।

এদিকে সর্বাত্মক অবরোধ আরোপের কারণে এখন সেখানকার লাখ লাখ মানুষ আতঙ্ক ও শঙ্কা নিয়ে দিনপাত করছেন। তাদের আশঙ্কা, যে কোনো সময় সেখানে স্থল হামলা শুরু করতে পারে ইসরায়েলি সেনারা।

ইসরায়েল ইতিমধ্যে গাজার কাছে প্রায় ৩ লাখ সেনা জড়ো করেছে। ইসরায়েলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইয়োহাভ গালান্টও ইঙ্গিত দিয়েছেন, হামাসের হামলার প্রতিশোধ নিতে গাজায় স্থল অভিযান চালাবেন তারা।

গত শনিবার হামাস ইসরায়েলে শক্তিশালী হামলা শুরুর পরই গাজাকে লক্ষ্য করে ব্যাপক বিমান হামলা চালাচ্ছে ইসরায়েল। তাদের এসব হামলায় এখন পর্যন্ত গাজায় ৯০০ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। অপরদিকে হামাসের হামলায় প্রাণ হারিয়েছেন ১ হাজার ২০০ ইসরায়েলি।

সূত্র: বিবিসি