Hathazari Sangbad
হাটহাজারীমঙ্গলবার , ৪ জুলাই ২০২৩

মঞ্চে মার্টিনেজের সঙ্গে সেলফি নিতে হুড়োহুড়ি ভারতে

স্পোর্টস ডেস্ক
জুলাই ৪, ২০২৩ ৫:১৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সংক্ষিপ্ত বাংলাদেশ সফর শেষে বর্তমানে ভারতের কলকাতায় অবস্থান করছেন বিশ্বজয়ী আর্জেন্টাইন গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্টিনেজ। সেখানে গোল্ডেন গ্লাভসজয়ী এই ফুটবলার দুই দিনের সফর করছেন। তার আগমনে তুমুল উন্মাদনায় ভাসছেন ভক্তরা। মার্টিনেজকে কেন্দ্র করে বানানো মোহনবাগান ক্লাবের সাবেক ফুটবলারদের মিলনমেলায় উপচে পড়া ভিড় জমেছে। জনপ্রিয় এই গোলরক্ষকের সঙ্গে সেলফি নিতে অনেকেই ব্যারিকেড ভেঙে মঞ্চে ওঠে পড়েন।
 
গতকাল রাতে বাংলাদেশ থেকে কলকাতায় পৌঁছান লিওনেল মেসির দলের এই সতীর্থ। তাকে একপলক দেখতে বিমানবন্দরে ফুটবল প্রেমীদের ছিল বাঁধভাঙা উচ্ছ্বাস। বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানান মোহনবাগান ক্লাবের সচিব দেবাশিস দত্ত ও পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রী সুজিত বসু। সোমবার বিকেলে বিমানবন্দর থেকে সোজা ইস্টার্ন মেট্রোপলিটন বাইপাসের পাশের একটি পাঁচতারা হোটেলে চলে যান এমিলিয়ানো। হোটেলেই দিনের বাকি সময়টা সেখানেই বিশ্রাম নেন তিনি।
 
সফরের প্রথমদিন আজ মিলনমেলায় একটি আলোচনাসভায় যোগ দিয়েছেন এই তারকা। সেখানে তিনি নিজের জীবনের নানা ঘটনার কথা জানাবেন। বহু বিশিষ্ট ব্যক্তিরাও যোগ দেবেন এই অনুষ্ঠানে। মোহনবাগানের পাশাপাশি ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের কর্মকর্তারাও এতে উপস্থিত থাকবেন। এদিন অনুষ্ঠান শুরুর নির্ধারিত সময়ের প্রায় ২০-২৫ মিনিট পরে মিলনমেলা প্রাঙ্গণে পৌঁছান মার্টিনেজ। তার অনেক আগে থেকেই ভিড় জমেছিল সেখানে। পরবর্তীতে মার্টিনেজ মঞ্চে ওঠার পরে তার ছবি তোলার জন্য এগোতে থাকেন দর্শকরা। তাতেই ব্যারিকেড ভেঙে পড়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়। প্রায় ২০ মিনিট পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামলায়।
 
শুরুতে ইস্টবেঙ্গলের কর্মকর্তারা সংবর্ধনা জানান মার্টিনেজকে। এই সময় তিনি ইস্টবেঙ্গলের জার্সি পরেন। মুখে বলেন, ‘জয় ইস্টবেঙ্গল’। পরে মোহনবাগান কর্তারাও তাকে সংবর্ধনা দেন। সেখানে উদ্যোক্তাদের একটি ভুল চোখে পড়ে। ইস্টবেঙ্গল জার্সির লোগোতে ‘এসসি’ ও মোহনবাগান জার্সির লোগোতে ‘এটিকে’ লেখা ছিল। শুধু জার্সিই নয়, পরে যখন মঞ্চের পেছনে পর্দায় দুই প্রধানের নাম ফুটে ওঠে সেখানেও ভুল লোগো ছিল। এরপর মঞ্চে বিশৃঙ্খলা শুরু হয়।
 
অলোক মুখোপাধ্যায়, সন্দীপ নন্দী, হেমন্ত ডোরার মতো প্রাক্তন ফুটবলারেরা মার্টিনেজের সঙ্গে ছবি তোলার জন্য মঞ্চে ওঠে পড়েন। তাদের অনেকের সঙ্গে স্ত্রী-সন্তানরাও ছিলেন। উদ্যোক্তাদের পক্ষ থেকে বারবার তাদের মঞ্চ ছাড়তে বলা হলেও প্রিয় তারকার সান্নিধ্য ছাড়তে রাজি নন তারা। ফলে মঞ্চের সামনে হুড়োহুড়ি শুরু হয়ে যায়। ব্যারিকেড টপকে অনেকে ঢুকে পড়তে থাকেন। অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পরপরই সেখান থেকে বেরিয়ে যান মার্টিনেজ। কেউ বলছেন, বাধ্য হয়েই তাকে পুলিশের গাড়িতে করে সেখান থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়। যদিও এই বিষয়ে আয়োজকদের কেউ এখনও কোনো করেননি।
 
আজ বিকেলে মোহনবাগানের মাঠে যাবেন এই ফুটবলার। সেখানেও তার জন্য একটি সংবর্ধনার আয়োজন রয়েছে বলে জানা গেছে। এরপর সেখানে একটি প্রীতি ম্যাচও হবে, যেখানে খেলবেন পুলিশ কমিশনার একাদশ ও মোহনবাগানের সাবেক ফুটবলাররা। পরবর্তীতে তিনি কিংবদন্তী ফুটবলার পেলে-ম্যারাডোনা-সোবার্স নামাঙ্কিত মোহনবাগান গেইট উদ্বোধন করবেন।