Hathazari Sangbad
হাটহাজারীবৃহস্পতিবার , ৪ জানুয়ারি ২০২৪

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদন শুরু

অনলাইন ডেস্ক:
জানুয়ারি ৪, ২০২৪ ৫:৫৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ২০২৩-২৪ সেশনের স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি আবেদন শুরু হচ্ছে বৃহস্পতিবার (০৪ জানুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টায়। অনলাইনে এ আবেদন চলবে ১৮ জানুয়ারি রাত ১২টা পর্যন্ত। ২০ জানুয়ারি রাত ১২টা পর্যন্ত জমা দেওয়া যাবে আবেদন ফি।

চবির একাডেমিক শাখার ডেপুটি রেজিস্ট্রার ও ভর্তি কমিটির সচিব এসএম আকবর হোসাইন স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়।

ভর্তির যোগ্যতা-

আবেদনকারী বাংলাদেশের যেকোনো শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ২০২০ অথবা ২০২১ সালের মাধ্যমিক/দাখিল অথবা সমমান পরীক্ষা এবং ২০২২ অথবা ২০২৩ সালের উচ্চ মাধ্যমিক/আলিম অথবা সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়া সাপেক্ষে ভর্তি নির্দেশিকায় উল্লিখিত সংশ্লিষ্ট ইউনিট/উপ-ইউনিট/অনুষদ/বিভাগ/ ইনস্টিটিউট এ ভর্তির যোগ্যতা আছে তারা ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য বিবেচিত হবে।

আবেদন প্রক্রিয়া-

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির অফিসিয়াল ওয়েবসাইট (https://admission.cu.ac.bd)-এ অনলাইনে আবেদন প্রক্রিয়া অনুসরণ করে ভর্তিচ্ছুদের আবেদন সম্পন্ন করতে হবে।

আবেদন ফি-

এবার প্রতি ইউনিট/উপ-ইউনিটের আবেদন ফি ৯০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। পাশাপাশি প্রসেসিং ফি বাবদ ১০০ টাকা কাটা হবে। সুতরাং প্রতি ইউনিটে আবেদন ফি ১ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। নির্ধারিত আবেদন ফি ‘রকেট/বিকাশ’ Mobile Financial Service Operator এর মাধ্যমে জমা দেয়া যাবে।

নম্বর বণ্টন-

প্রতি সংশ্লিষ্ট ইউনিট/উপ-ইউনিটে ১০০ নম্বরের নৈর্ব্যক্তিক (MCQ) পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া ব্যবহারিক পরীক্ষায় (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) অংশগ্রহণ করতে হবে। ভর্তি পরীক্ষায় মোট প্রাপ্ত নম্বর থেকে প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য শূন্য দশমিক ০.২৫ নম্বর কাটা করা হবে। তবে এবার ‘সি’ ইউনিট ভর্তি পরীক্ষায় মোট প্রাপ্ত নম্বর থেকে প্রতিটি ১ নম্বরের প্রশ্নের ভুল উত্তরের জন্য শূন্য দশমিক ২৫ এবং প্রতিটি ২ নম্বরের প্রশ্নের ভুল উত্তরের জন্য শূন্য দশমিক ৫০ কাটা করা হবে। তাছাড়া ২০২১ সালের মাধ্যমিক/দাখিল অথবা সমমান পরীক্ষা এবং ২০২৩ সালের উচ্চ মাধ্যমিক/আলিম বা সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী ব্যতীত অন্য শিক্ষাবর্ষে মাধ্যমিক/দাখিল বা সমমান এবং উচ্চ মাধ্যমিক/আলিম বা সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে তাদের নিজ নিজ সর্বমোট (MCQ+SSC & HSC/সমমান পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএ’র গুণিতক + ব্যবহারিক (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) প্রাপ্ত নম্বর থেকে ৫ (পাঁচ) নম্বর কেটে মেধা তালিকা প্রস্তুত করা হবে।

কেন্দ্র নির্বাচনের ক্ষেত্রে-

এবার ভর্তি পরীক্ষা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়াও আরও দুটি বিভাগীয় শহরে অনুষ্ঠিত হবে। সেগুলো হলো – ঢাকা বিভাগে (ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস) এবং রাজশাহী বিভাগীয় শহরে (রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস) একই সময় ও তারিখে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তবে বি-১ ও ডি-১ উপ-ইউনিটের পরীক্ষা শুধুমাত্র চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হবে। আবেদনকারী শিক্ষার্থী কোন বিভাগীয় শহরে পরীক্ষা দিতে ইচ্ছুক আবেদনের সময় ইউনিট/উপ-ইউনিটে ১ম, ২য় ও ৩য় পছন্দের অপশন অর্থাৎ ৩টি কেন্দ্রের সবগুলো পছন্দ অনুযায়ী সঠিকভাবে নির্বাচন করতে হবে।

দ্বিতীয়বার আবেদনের সুযোগ-

২০২০ সালের মাধ্যমিক/দাখিল বা সমমান পরীক্ষা এবং ২০২২ সালের উচ্চমাধ্যমিক/আলিম বা সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবে৷ তবে মাধ্যমিক/দাখিল বা সমমান এবং উচ্চমাধ্যমিক/ আলিম বা সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের প্রাপ্ত নম্বর থেকে ৫ নম্বর কেটে মেধাতালিকা প্রস্তুত করা হবে।

ইউনিটভিত্তিক তথ্য-

এবার ভর্তি পরীক্ষায় ‘এ’, ‘বি’ ‘সি’ ও ‘ডি’ এ চারটি ইউনিট ও দুইটি উপ ইউনিট ‘বি-১’ ও ‘ডি-১’ রয়েছে। এর মধ্যে ‘এ’ ইউনিটের অধীনে সকল বিজ্ঞান ও জীববিজ্ঞান বিভাগ/ইনস্টিটিউট, ‘বি’ ইউনিটের অধীনে কলা ও মানবিক অনুষদ, ‘সি’ ইউনিটের অধীনে বিজনেস স্টাডিজ অনুষদ এবং ‘ডি’ ইউনিটের অধীনে সমাজবিজ্ঞান অনুষদের সমস্ত বিভাগের ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন হবে। ভর্তি নির্দেশিকায় উল্লিখিত সংশ্লিষ্ট ইউনিট/উপ-ইউনিট এবং অনুষদ, বিভাগ/ইনস্টিটিউটভিত্তিক ভর্তির যোগ্যতা ভর্তির ওয়েবসাইটে বিস্তারিত পাওয়া যাবে।

জিসিই (ও লেভেল এবং এ লেভেল) ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ এবং সমমানের বিদেশি সার্টিফিকেটধারী প্রার্থীদের ক্ষেত্রে যেসব আবেদনকারী ২০২০ অথবা ২০২১ সালের জিসিই ‘ও’ লেভেল পরীক্ষায় এবং ২০২২ অথবা ২০২৩ সালের জিসিই ‘এ’ লেভেল পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে এবং ভর্তি নির্দেশিকায় উল্লেখিত ন্যূনতম যোগ্যতা রয়েছে, তারা সংশ্লিষ্ট ইউনিট/উপইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য বিবেচিত হবেন। এ সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্যাদি ভর্তির ওয়েবসাইটে ভর্তি নির্দেশিকায় দেওয়া আছে।

জিসিই (ও লেভেল এবং এ লেভেল) অথবা সমমানের বিদেশি সার্টিফিকেটধারী আবেদনকারীকে সংশ্লিষ্ট পরীক্ষাগুলোর সমমান করার জন্য বিজ্ঞান অনুষদ অফিসে তার গ্রেডশিট/মার্কশিটের ফটোকপিসহ আবেদনের সঙ্গে রেজিস্ট্রার, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অগ্রণী ব্যাংক, চবি শাখা থেকে সংগৃহীত ১ হাজার টাকার পে-অর্ডার (সমতা নিরূপণ) ফি প্রদান করতে হবে।

আবেদন সংশোধনের সময়-

২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য অনলাইনে আবেদনপ্রক্রিয়ার নিয়মাবলি চবির ভর্তির ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে। আবেদনপত্রে যেকোনো প্রকার সংশোধনী বা ভর্তি পরীক্ষাসংক্রান্ত যেকোনো ডকুমেন্টের ডুপ্লিকেট কপি নেওয়ার জন্য (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) ৩০০ টাকা সার্ভিস চার্জ দিতে হবে। অর্থাৎ আবেদন সংক্রান্ত সকল সংশোধনী ০৪ জানুয়ারি থেকে ২৭ জানুয়ারি পর্যন্ত সংশোধন করা যাবে।