Hathazari Sangbad
হাটহাজারীবুধবার , ২৫ অক্টোবর ২০২৩

এখনো যেভাবে সেমিফাইনালে যেতে পারে বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক:
অক্টোবর ২৫, ২০২৩ ৩:৫৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ক্রিকেটের বড় আসর মানেই যেন বাংলাদেশ ভক্তদের সমীকরণ দুশ্চিন্তা। নিজেদের ক্রিকেটের বাইরে প্রতিপক্ষের খেলার দিকেই বারবার তাকিয়ে থাকতে হয়েছে টাইগার ভক্তদের। এবারের বিশ্বকাপেও পরিস্থিতি এরচেয়ে ব্যতিক্রম না। নিজেদের পাঁচ ম্যাচে মাত্র এক জয় পাওয়া বাংলাদেশের সেমিফাইনাল ভাগ্য এখন কিছুটা প্রতিপক্ষের ওপরেই নির্ভর করছে।

অবশ্য তাতে নিজেদের জন্যও অনেকটা কাজ করতে হবে সাকিব আল হাসানদের। বিশ্বকাপে আগে যা ঘটেনি সেই অসম্ভব কাজটাই এখন বাংলাদেশের সামনে অপেক্ষা করছে। এর আগে কখনোই বিশ্বকাপে ৩টির বেশি জয় পায়নি বাংলাদেশ। সেমিফাইনাল খেলতে হলে সেটিই করা দরকার সাকিবদের।

বাংলাদেশের যা করণীয়-

সেমিফাইনালে যেতে কী করণীয় বাংলাদেশের। উত্তর একটাই। জিততে হবে সবকটি ম্যাচ। একটি ম্যাচ হারলেও জড়াতে হবে অসংখ্য সমীকরণের মধ্যে। আর সবকটি জিতলে অপেক্ষাকৃত সহজ হবে পরিস্থিতি।

সাকিবদের সামনে বাকি আর চার ম্যাচ। তার সবকটিতেই চাই জয়। আগামী শনিবার ২৮ অক্টোবর বাংলাদেশের ম্যাচ নেদারল্যান্ডসের বিরুদ্ধে। কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে হবে সেই ম্যাচ। পরের ম্যাচটা পাকিস্তানের বিপক্ষে ৩১ অক্টোবর। সেদিনও কলকাতার মাঠে নামবে সাকিব বাহিনী।

বিশ্বকাপ মিশনে বাংলাদেশের শেষ দুই ম্যাচ হবে দিল্লি এবং পুনেতে। দিল্লিতে ৬ নভেম্বরের ম্যাচে প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা আর ১১ তারিখ পুনেতে শেষ ম্যাচ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। এই সব ম্যাচেই জয় দরকার টাইগারদের। পা হড়কালেই সেমির স্বপ্ন হুমকির মুখে পড়বে।

নিউজিল্যান্ড এবং দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে সমীকরণ-

বাংলাদেশ যদি পরবর্তী ৪ ম্যাচেই জয় পায় তবে মোট পয়েন্ট হবে ১০। আর তিন ম্যাচ জিতলে হবে ৮। এই মুহূর্তে ৮ পয়েন্ট আছে নিউজিল্যান্ড এবং দক্ষিণ আফ্রিকা। বাংলাদেশের ৮ পয়েন্ট নিয়ে সেমিফাইনালে যাওয়ার স্বপ্ন দেখতে হলে এই দুই দলের বাকি সব ম্যাচেই হারতে হবে। তবে বলে রাখা দরকার, এই দুই দল সব ম্যাচ হারলে বাংলাদেশের সামনে চলে আসবে পাকিস্তান এবং অস্ট্রেলিয়া।

দক্ষিণ আফ্রিকার এখনও পাকিস্তানের সঙ্গে ম্যাচ বাকি। ম্যাচে প্রোটিয়ারা হারলে পাকিস্তানের পয়েন্ট হবে ৬। আবার তাদের নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষেও ম্যাচ বাকি। সেই ম্যাচ হারলে নিউজিল্যান্ড পেয়ে যাবে ১০ পয়েন্ট। আবার কিউইদের সঙ্গে দক্ষিণ আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া, পাকিস্তান তিন দলেরই খেলা বাকি। অস্ট্রেলিয়া পাকিস্তান সেখানেও জয় পেলে ১০ পয়েন্ট পেয়ে যেতে পারে।

আপাতত তাই দক্ষিণ আফ্রিকা এবং নিউজিল্যান্ডকে হিসেবের বাইরে রেখেই সমীকরণ মেলাতে হবে টাইগারদের। যার অর্থ বাংলাদেশের জন্য বাকি থাকছে কেবল চার নম্বর স্লট।

পাকিস্তান এবং অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে কী সমীকরণ-

চার নম্বরের লড়াইয়ে এখন বাংলাদেশের প্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তান, অস্ট্রেলিয়া এবং আফগানিস্তান। বাংলাদেশের এক্ষেত্রে প্রত্যাশা করতে হবে পরের ম্যাচগুলোতে তাদের পয়েন্ট খোয়ানোর। এই প্রতিবেদনের মুহূর্তে অস্ট্রেলিয়া খেলছে নেদারল্যান্ডসের বিরুদ্ধে। সেই ম্যাচে জিতলে তাদের পয়েন্ট হবে ৬। যার অর্থ, এরপরের বাকি চার ম্যাচ থেকে কমপক্ষে দুটি ম্যাচ অজিদের হারতেই হবে।

একই অবস্থা আফগানিস্তান এবং পাকিস্তানের বেলাতেও প্রযোজ্য। বাবর আজম, হাশমতউল্লাহ শহিদিরা দুই ম্যাচের বেশি জিতলেই বিপাকে পড়তে হবে সাকিব আল হাসানদের। এরমাঝে অস্ট্রেলিয়া এবং আফগানিস্তানের ম্যাচটায় বাংলাদেশকে বাড়তি নজর দিতে হবে।